কিছু প্রশ্ন ও উওর আর্টিকেল এর দ্বিতীয় পাঠ।

আমি ডোমেইন কিভাবে রেজিস্ট্রেশন করব ?

ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য প্রথমে যে কোন একটি রেজিস্ট্রার কোম্পানি চয়েস করে নিতে হবে।

  • তারপর সেই রেজিস্ট্রার কোম্পানির ওয়েবসাইটে গিয়ে ভিজিট করতে হবে। 
  • প্রতিটা রেজিস্ট্রার কোম্পানির ওয়েবসাইটে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য সার্চ বক্স থাকে, আপনি যে নামটি রেজিস্ট্রেশন করবেন। সেই নামটি লিখে সার্চ করতে হবে এবং সেই নামের সাথে ডোমেইন এক্সটেনশন সিলেক্ট করতে হবে। 
  • আপনার সার্চকৃত নামটি যদি খালি থাকে, তাহলেই আপনি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন অন্যথায় পারবেন না।

নোটঃ ডোমেইন আপনি রেজিস্ট্রেশন করুন বা কোন মার্কেটপ্লেস থেকে ক্রয় করুন। সব সময় নিজের নামে নিবন্ধন বা মালিকানা করে নিবেন। যেমন,  নিজের সঠিক ইমেইল , ফোন নাম্বার , বর্তমান ঠিকানা  এবং আপনার অরজিনাল নাম ইত্যাদি বিষয়গুলো ব্যবহার করুন।

এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে আমার লেখা এই আর্টিকেলটি পড়ুন, ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন কি ভাবে হয় ?


ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে কত টাকা লাগে ?

সত্যি বলতে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে তেমন বেশি টাকা লাগে না।

বিভিন্ন রেজিস্ট্রার কোম্পানি ভেদে এবং বিভিন্ন ডোমেইন এক্সটেনশন ভেদে রেজিস্ট্রেশন ফি নির্ধারণ হয়ে থাকে, কোন ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে কত টাকা লাগে, এগুলো আপনারা রেজিস্ট্রার কোম্পানিগুলোর পোর্টালে ভিজিট করলে দেখতে পাবেন।


কত দিনের জন্য আমি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারব ? 

সর্বনিম্ন ১ বছর থেকে সর্বোচ্চ ১০ বছরের জন্য আপনি রেজিস্ট্রেশন করতে পারেন

ডোমেইন রিনিউ কত দিনের জন্য করতে পারব ?

ডোমেইন রিনিউ, সর্বনিম্ন ১ বছর থেকে সর্বোচ্চ ১০ বছরের জন্য আপনি করতে পারেন।

আমি যদি ডোমেইন রিনিউ না করি তা হলে কি হবে ?  

আপনার ডোমেইনের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার মুহূর্ত যদি আপনি রিনিউ না করেন। তাহলে, আপনার ডোমেইনের মালিকানা হারাবেন।

ডোমেইন রিনিউ করতে কত টাকা লাগে ?

বিভিন্ন রেজিস্ট্রার কোম্পানি ভেদে এবং বিভিন্ন ডোমেইন এক্সটেনশন ভেদে রিনিউ ফি নির্ধারণ হয়ে থাকে। ডোমেইন রিনিউ করতে কত টাকা লাগে?  আপনার ডোমেইন টি যে রেজিস্ট্রার কোম্পানিতে রয়েছে সেই রেজিস্ট্রারে পোর্টালে লগ ইন করে, ডোমেইন রিনিউ করার অপশনে গেলেই দেখতে পাবেন।


আমি একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে গিয়েছিলাম, তবে সেটা খালি নেই অন্য কেউ রেজিস্ট্রেশন করে রেখে দিয়েছে। এখন আমি ঐ ডোমেইন টি কিভাবে কিনতে পারি ?

বর্তমান ডোমেইনটির মালিক যদি ডোমেইন টি বিক্রি করেন,  সেক্ষেত্রে আপনি ক্রয় করতে পারবেন।

আপনি চেক করে দেখতে পারেন ডোমেইন টি কোন মারকেটপ্লেসে লিস্ট করা আছে কিনা। 

তাছাড়া আপনি কোন ডোমেইন ব্রোকার হায়ার করে, ব্রোকারের মাধ্যমে বর্তমান ডোমেইন টির মালিকের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করতে পারেন।

আপনার ডোমেইন এর সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পারবেন, আমার লেখা এই আর্টিকেলটি পড়ুন। 

কিভাবে ডোমেইন কিনবেন বা রেজিস্ট্রেশন করবেনসাইফুল মনি ভাইয়ের ভিডিও টিউটোরিয়ালটি দেখতে পারেন। 


গুরুত্বপূর্ণ নোটঃ আমাদের কমিউনিটির ডোমেইন ইনভেস্টরদের সবসময় পরামর্শ দিয়ে থাকি। 

আপনারা, ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা থেকে ৯৫% বিরত থাকুন। কেননা, ভালো ভালো কি ওয়ার্ড এর ডোমেইনগুলো আজ থেকে বিশ বা পঁচিশ বছর আগে রেজিস্ট্রেশন হয়ে বসে রয়েছে। তখন হয়তো আমাদের অনেকের জন্ম হয় নাই বা আমরা অনেকেই ইন্টারনেট এর নামও শুনি নাই।

যে ডোমেইনটি আপনি ১ লাখ টাকা দিয়ে কিনবেন, সেই ডোমেইনটি আপনি ১০ লাখ টাকা বিক্রি করবেন এটাই স্বাভাবিক।
তবে, আপনি ৮০০ টাকা দিয়ে একটা ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করে সেই ডোমেইনটি থেকে যদি আপনি ১০ লাখ টাকা আশা করেন, সেটা কিভাবে সম্ভব ? তবে মিরাক্কেল কিছু ঘটতে পারে যে কোন সময়।
যেমন, জেলেরা নদীতে একদিন ৫ কেজির একটি ইলিশ মাছ পেল তার মানে এই নয় যে প্রতিদিন ৫ কেজি ওজনের একটি করে ইলিশ মাছ পাবে।
নোটঃ মার্কেটপ্লেসগুলোর থেকে পুরাতন ভালো কি ওয়ার্ড এর ডোমেইন কেনার চেষ্টা করুন।  ১০ টি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন না করে। সেই ১০ টি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে যে টাকা লাগে, সেই টাকা দিয়ে ১ টি ডোমেইন আফটার মার্কেটপ্লেস থেকে কিনেন। তাহলে সফলতা পাওয়া সহজ হবে। 
আবার, পুরাতন ডোমেইনের ভ্যালু ও শূন্য হতে পারে।
যেমন,
পুরাতন ডোমেইন মানেই অনেক ভ্যালুয়েবল , এটা একদম ভুল ধারণা। এমন অনেক ডোমেইন আছে যেগুলো আমি হ্যান্ড রেজিস্ট্রেশন করে ইতিমধ্যে ১৫০$-১২৫০$ এ ইন্টার্নেশনাল মার্কেটপ্লেসে সেল করছি। বিভিন্ন অকশন মার্কেটগুলো ভিজিট করলে আপনি দেখতে পারবেন ১০$-২০$ খরচ করে অনেক বছরের পুরাতন ডোমেইন পাওয়া যায়।
যেমন, Godaddy, Dropcatch, Dynadot, Namesilo, name, Nameliquidate, ইত্যাদি। হয়তো এদের বেশিরভাগ ডোমেইন এর ভ্যালু নাই বললেই চলে। আবার কিছু আছে তাদের হিউজ ভ্যালু এবং সেখানে অনেক প্রতিযোগিতা হয়।
প্রশ্ন হল, ডোমেইনগুলো কেন ইউজার রিনিউ করে না ?
  • হয়তো ইউজার ইচ্ছে করে রিনিউ করে না।।
  • সংশ্লিষ্ট ডোমেইনের ট্রেন্ড পূর্বে ছিল এখন হয়তো বর্তমানে নাই।
  • ইউজারের অনুপস্থিতি।
  • সঠিক বায়ার না পাওয়া।
ডোমেইন ইনভেস্টমেন্ট একটি সম্ভাবনাময় ব্যবসা। অনেকটা ব্যাংকে ডিপোজিট এর মত। তবে সঠিক ডোমেইন নির্বাচন করে কিনা সত্যিই অনেক কষ্টকর। এজন্য প্রয়োজন প্রচুর সময় দেওয়া, বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসগুলোর প্রতিদিনের অকশন রিপোর্ট পর্যবেক্ষণ করা, সমসাময়িক ট্রেন্ড বুঝা, কিওয়ার্ড রিসার্চ, ডোমেইন কিনে ধৈর্য ধরে বসে থাকা, রিনিউ করা ইত্যাদি।

Comments