আপনি কিভাবে ডোমেইন, মার্কেটিং করে বিক্রি করবেন ?

 

এখানে যারা অভিজ্ঞ আছেন তারা হয়তো বিষয়গুলো জানেন।। একান্তই যারা নতুন ডোমেইন ইনভেস্টর তাদের জন্য মূলত।

Inbound marketing VS Outbound marketing.
Outbound marketing: সহজেই আউটবাউন্ড মার্কেটিং হচ্ছে এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে আপনি আপনার পণ্য/সেবাকে সম্ভাব্য ক্রেতার কাছে ভ্যালুয়েবল/গ্রহণযোগ্য করার জন্য একটি প্রক্রিয়া এটা মূলত একটি ট্রেডিশনাল প্রক্রিয়া। অর্থাৎ সম্ভাব্য ক্রেতা তৈরি করা। ক্রেতা এখানে আপনার কাছে আসবেনা আপনি ক্রেতাকে আপনার পণ্যটি কেনার জন্য মার্কেটিং প্রসার ব্যবহার করে আগ্রহী করে তুলতে হবে। এটা অনেকটা টার্গেটেড আপনি যে যে ব্যক্তি বা কোম্পানিগুলোকে নির্ধারিত/টার্গেট করবেন তাদের কাছে মার্কেটিং করা। মার্কেটিং/বিক্রয় প্রসার গুলো হল:

১/ নাম্বার সংগ্রহ করে ক্রেতাকে কল দেওয়া। মোটামুটি force করার মত।

২/ ইমেইল সংগ্রহ করে মেইল করা অর্থাৎ এটা হচ্ছে একদম সরাসরি টার্গেটের ইউজারদের মেইল সংগ্রহ করে (বাল্ক মেইল)মেইল করা। যেটা ডোমেইন ইনভেস্টরা করেন।

৩/ নির্দিষ্ট দেশের রেডিও, টেলিভিশনে, প্রিন্ট মিডিয়া বিজ্ঞাপন দেওয়া।

Inbound Marketing: বিশ্বের ৭০% মানুষ তার পণ্য/সেবার বিক্রয় প্রসারের জন্য ইনবাউন্ড মার্কেটিং ব্যবহার করে। এখন বিষয় হলো ইনবাউন্ড মার্কেটিং কি? ইনবাউন্ড মার্কেটিং হচ্ছে এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে একটা কোম্পানি অথবা একজন ব্যক্তি তার পণ্যটি বিক্রয়ের জন্য অনলাইনে বিভিন্ন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করবে, যেখানে তার পণ্যের আকর্ষণীয়, বৈশিষ্ট ইত্যাদি দেওয়া থাকবে। এখানে কাউকে force করা হবে না সরাসরি। ইনডাইরেক্টলি যে কেউ পণ্য বা সেবার জন্য আগ্রহী হতে পারে।।
এখন ইনবাউন্ড মার্কেটিং এর বিক্রয় প্রসার গুলো হল:

১/ কোম্পানির নিজস্ব ওয়েবসাইটে কোম্পানির প্রোডাক্ট সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা।

০২/ ব্লগিং

০৩/ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া যেমন ফেসবুক, টুইটার, লিঙ্কডিন এবং ইনস্টাগ্রামে, মেসেঞ্জার বিভিন্ন বিজ্ঞাপন।

০৪/ সবচেয়ে বড় যে বিষয়টি সেটি হলো গুগোল SEO।

সংক্ষেপে আমি উল্লেখ করলাম। ভুল-ত্রুটি হলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন। শুধরে নেয়ার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।।

আর্টিকেলটি লিখেছেন, 

Comments